কম্পিউটার টেস্ট

প্রসঙ্গ: আইটি অফিসার (চার ব্যাংক) অ্যাপটিটিউড টেস্ট অভিজ্ঞতা
(সামান্য দেরী হয়ে যাবার জন্য দুঃখিত)

চার ব্যাংকের সিনিয়র আইটি অফিসার পদে’র জন্য লিখিত পরীক্ষার পর গত ০১/০৩/২০১৯ এ অনুষ্ঠিত হয় অ্যাপটিটিউড পরীক্ষা। রিটেনে উত্তীর্ণ হয় মোট ১০০৮ জন।
অ্যাপটিটিউড পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় ঢাবি’র আইআইটি ডিপার্টমেন্টে’র ল্যাবে। ৫০ মার্কের পরীক্ষা।
সময় একঘন্টা করে চারটি স্লটে পরীক্ষা হয়। শুরু হয় ৯ টায়। চলে ৪:১৫ টা পর্যন্ত।
পরীক্ষায় আসে বাংলা টাইপিং, ইংরেজি টাইপিং এবং মাইক্রোসফট এক্সেল।
বাংলা টাইপিং এ ফন্ট চায় বিজয়ের সুতন্বী এমজে। ইংরেজিতে টাইমস নিউ রোমান। ফন্ট, লাইন স্পেসিংও বলে দেয়। কয়েক জায়গায়, বোল্ড, ইটালিক, আন্ডারলাইন করতে হয়।
মাইক্রোসফট এক্সেলে দু’টো টেবিল থাকে। সেল মার্জিং, বর্ডার দেয়া থাকে। সাম, এভারেজ, কন্ডিশনাল, কাউন্টের ফর্মুলা প্রয়োগের জায়গা থাকে। ভিলুকআপের প্রয়োগও খুব সম্ভব একটা জায়গায় থাকে, ঠিক শিউর না।
জাভা বা সি প্রোগ্রামিং ছিলো না। অন্য কোন ধরণের লজিক বা আইটি/কম্পিউটার বিজ্ঞান বিষয়ক প্রশ্নও ছিলো না।
কম্পিউটারগুলোতে অভ্র ছিলো। অভ্রতে লিখে খুবই সহজে সেটা বিজয়ে কনভার্ট করা যায়। কিন্তু বিজয় টাইপিং যারা পারেন, নিঃসন্দেহে এগিয়ে থাকবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *